Content Stitching কি এবং কিভাবে এড়াবেন?

গত পরশুদিন একজন ফেইসবুকে কন্টেন্ট  স্টিচিং নিয়ে প্রশ্ন করেছিলেন।তাকে ছোট করে উত্তর দিয়ে বলেছিলাম আমার ব্লগ এ বিস্তারিত লিখব।প্রশ্নটি যিনি করেছেন তিনি হয়তো গুগল করে দেখেননি।তবে নতুন ইন্টারনেট মার্কেটিং এর সাথে জড়িয়েছেন এমন অনেকেই এই বিষয়গুলোর সাথে অপরিচিত থাকতে পারেন।তাদের উদ্দেশ্যেই কন্টেন্ট স্টিচিং নিয়ে লিখতে বসলাম।চলুন শুরু করা যাক।

কন্টেন্ট স্টিচিং কি?

কন্টেন্ট স্টিচিং হচ্ছে এক ধরণের চিটিং।গুগলের ভাষায় এটি একটি  স্প্যাম কন্টেন্ট বলে বিবেচিত।২০১৩ সালের ডিসেম্বর মাসে ম্যাট কাট কন্টেন্ট  স্টিচিং নিয়ে একটি ভিডিও প্রকাশ করেন।সেখানে তিনি ‘স্টিচিং’ এর বিষয়ে ব্যক্ষা করেন।ম্যাট বরাবরই সোজাসাপ্তা কথা বলেন এখানেও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি।ম্যাট এর ভাষায় জোড়াতালি দিয়ে তৈরি করা যে কোন কন্টেন্টকে গুগল স্প্যাম হিসেবে মার্ক করে।কেউ যদি এধরণের আর্টিকেল সাইটে প্রকাশ করে র‍্যাঙ্কিং আশা করেন তাহলে সেটা সঠিক হবেনা।
জোড়াতালি কি?  

জোড়াতালি হচ্ছে কোন একটি বিষয়ে আপনার সামান্য ধারণা আছে।সে বিষয়ে লেখার জন্য আপনি আগ্রহী কিন্তু আপনার নিজের সে ধরণের রিসোর্স নেই।আর সেজন্য আপনি বিভিন্ন ওয়েবসাইট ঘেতে কিছু তথ্য পেলেন এবং সেগুলো যুক্ত করে তার সাথে আপনার নিজস্ব রিসোর্স দিয়ে একটি পূর্ণাঙ্গ  আর্টিকেল তৈরি করে সাইটে প্রকাশ করলেন।

গুগলের ভাষায় এটাই কন্টেন্ট স্টিচিং।

অনেকে মনে করেন কোন ওয়েবসাইট থেকে তথ্য নিলে সে তথ্যের  সোর্সলিংক দিয়ে দিলে হয়তোবা সে কন্টেন্ট গুগল ডুপ্লিকেট হিসেবে মার্ক করবেনা।এ ধারনা যারা পোষণ করেন তারা ভূল করছেন।আপনি সোর্সলিংক উল্লেখ করেন আর নাই করেন তাতে গুগলের কিচ্ছু যায় আসেনা।গুগল তার নীতিতে অটল।

কিভাবে এড়াবেন কন্টেন্ট স্টিচিং?

ম্যাট তার প্রকাশিত ভিডিওতে উইকিপিডিয়ার বিষয় উল্লেখ করে বলেছেন কন্টেন্ট স্টিচিং তারাও করে।তবে কন্টেন্ট কপি করে প্রকাশ করা আর নিজের ভাষায় লিখে প্রকাশ করার মাঝে পার্থক্য আছে।তাই গুগল মনে করে প্রয়োজনে অন্য কারো থেকে রিসোর্স সহায়তা আপনি নিতেই পারেন তবে সেটি আপনার নিজের ভাষায় লেখা হতে হবে।

হুবহু সেই কন্টেন্ট ব্যবহারের পরিবর্তে সেই তথ্যের আলোকে নিজের ভাষায় লিখে যে কোন কন্টেন্ট আপনি প্রকাশ করতে পারেন।সেটা   স্টিচিং বলে বিবেচিত হবেনা।

কিছু অংশ যদি প্রয়োজনের তাগিদে কপি করাই লাগে তবে সেটিও ইউনিক করেই প্রকাশ করতে হবে এবং সেক্ষেত্রে তথ্যের লিংক যুক্ত করে দিলে সেটা গুড কন্টেন্ট বলেই বিবেচিত হবে।

বিষয়টি আরো পরিষ্কার হতে ম্যাট এর প্রকাশিত সাক্ষাৎকার ভিডিওটি দেখে নিন এখান থেকে।

 

 

 

 


About karjohn Kamal

আমি কার্জন কামাল।শখের বসে মার্কেটিং করতে এসে পরিচিত হই ইন্টারনেট মার্কেটিং এর সাথে। ২০০৯ সালে আমি ব্লগিং এবং ইন্টারনেট মার্কেটিং এর সাথে পুরোপুরি জড়িত হই।ওয়েব ডিভেলপমেন্ট এবং এসইও নিয়ে কাজ করি প্রায় ৩ বছর। বর্তমানে আমি একজন উদ্যোক্তা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।